পাঁচ অভ্যাসেই কাবু হবে বাতের ব্যথা, ওষুধ খাওয়ার দরকার নেই

গুড হেলথ ডেস্ক

বয়স বাড়লেই বেশির ভাগ মানুষেরই শুরু হয় বাতের ব্যথা। মেয়েদের ক্ষেত্রে এই বয়সের সীমা ৪০, ‌এবং পুরুষদের ক্ষেত্রে সাধারণত ৫০-এর কাছাকাছি। এখন অবশ্য কোনও ব্যথাই বয়স বিচার করে আসে না। সেডেন্টারি লাইফস্টাইলে কমবয়সিরাও আর্থ্রাইটিসে (arthritis pain) ভুগছে। গাঁটে গাঁটে অসহ্য যন্ত্রণা। উঠতে-বসতে, সিঁড়ি ভাঙতে কষ্ট। টানা ৭-৮ ঘণ্টা কম্পিউটারে বসে কাজ করেন যাঁরা, তাঁরা তো ভুগছেনই, রেহাই নেই ঘরোয়া কাজ করতে অভ্যস্ত গৃহবধূদেরও। হয়তো জোরে হাঁটতে গেলেন বা পা মুড়ে মাটিতে বসতে গেলেন, ওমনি যন্ত্রণায় হাঁটুটা অবশ হয়ে গেল।

ব্যথা (arthritis pain)  প্রথম শুরু হয় অস্থিসন্ধিতে। ফলে অস্থিসন্ধির সচলতা ধীরে ধীরে কমতে থাকে। তখন সিঁড়ি দিয়ে উঠতে বা হাঁটু মুড়ে বসতে কিংবা দ্রুত চলাফেরাতেও সমস্যা হয়। অনেকক্ষণ একটানা হাঁটলেও পায়ের ব্যথা শুরু হয়।

Rheumatoid Arthritis

কেন হয় বাতের ব্যথা (arthritis pain) ?

বিভিন্ন হাড়ের সংযোগস্থল অর্থাৎ অস্থিসন্ধি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার ফলে বাত হয়। এতে ব্যথা হওয়া সঙ্গে সঙ্গে চলাফেরায়ও সমস্যা হতে শুরু করে। দু’টি হাড়ের অস্থিসন্ধিতে রয়েছে কার্টিলেজ। এই কার্টিলেজগুলির ক্রমাগত ক্ষয়ের ফলে বাতের সমস্যা শুরু হয়।

Joint Pain

পাঁচ অভ্যাস এখনই বদলান, তাহলেই ব্যথা কমবে

বাতের হাত থেকে সম্পূর্ণ রেহাই পাওয়ার কোনও ওষুধ বা পদ্ধতি এখনও আবিষ্কৃত হয়নি। ওযুধ প্রয়োগ করে বাতের সমস্যাগুলি থেকে সাময়িক রেহাই মিলতে পারে। রোগ যাতে না বাড়ে তার জন্য নিয়মিত ওষুধ খেতে হবে। ফিজিওথেরাপি করতে হবে। তাছাড়া রোজকার জীবনে কিছু নিয়ম মানলেও ব্যথা অনেক কমবে।

১) ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকলে অস্থিসন্ধির উপরে চাপ অনেকটাই কমে যাবে। ফলে অস্থিসন্ধির ভিতরে থাকা কার্টিলেজের আরও ক্ষয়ে যাওয়ার আশঙ্কা কমবে ব্যথাও কমবে।

২) অ্যাকটিভ থাকতে হবে। ঘরের কাজ করুন, আঙুলে বা হাতে ব্যথা হলেও চেষ্টা করুন কাজ করার। ঘর গোছান, নিজের হাতে বাসন ধুতে পারেন, এতেও উপকার হবে।

 Pain

৩) নিয়মিত শরীরচর্চা ও ফিজিওথেরাপি করলে ব্যথা (arthritis pain) অনেক নিয়ন্ত্রণে থাকবে। ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে হাঁটুন, স্পট জগিং করুন, সাঁতার কাটুন, স্কোয়াট করুন, এতে ব্যথা কমবে। নিয়মিত সাঁতার কাটলে পেশিতে চাপ কমে যায়, দেহে কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। গবেষণা বলছে হাঁটু ও নিতম্বের জোরও বাড়ে।

৪) ভিটামিন ডি হাড়ের স্বাস্থ্য ভাল রাখে। অনেকসময় ডাক্তারবাবুরা ভিটামিন ডি সাপ্লিমেন্ট খেতে বলেন। প্রাকৃতিকভাবে ভিটামিন ডি পেতে গায়ে কিছুটা সময় রোদ লাগানো দরকার। তাছাড়া ভিটামিন ও মিনারেলস সমৃদ্ধ খাবার খান।

৫) যোগব্যায়াম বাতের ব্যথা কমাতে খুব কার্যকরী।