আয়ুর্বেদের পথে খুঁজে নিন সৌন্দর্যের চাবিকাঠি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আমরা সকলেই জানি আয়ুর্বেদের মতো প্রাচীন বিজ্ঞান যে শুধু মানবশরীরকে একটি প্রাকৃতিক ও সামগ্রিক দৃষ্টিভঙ্গিতে বিচার করে তাই নয়, পাশাপাশি দীর্ঘমেয়াদি সুস্বাস্থ্যও এনে দেয় যার ফলাফল দীর্ঘস্থায়ী। কিন্তু তা সত্ত্বেও সে কথা ভুলে গিয়ে চটজলদি ফলাফল পেতে রাসায়নিক উপায়ই বেছে নিই। কিন্তু জানেন কি, শরীরের সুস্থতা রক্ষায় আয়ুর্বেদ কীভাবে কাজ করে? আসুন দেখে নেওয়া যাক আয়ুর্বেদিক ভেষজ, খাদ্য, নিয়ম এবং জীবনশৈলীর কিছু শ্রেষ্ঠ কৌশল যা আমাদের চুল আর ত্বক তো সুন্দর করে তোলেই, সামগ্রিকভাবে সুস্থ থাকতেও সাহায্য করে।

চুলের যত্নে

আমলকি

ত্রিফলার অন্যতম উপাদান আমলকি এবং অত্যন্ত কার্যকর। শরীরের যাবতীয় টক্সিন বের করে দিতে সাহায্য করে আমলকি এবং এর প্রাকৃতিক অ্যান্টি-অক্সিডান্ট নানা ক্ষয়ক্ষতি সারিয়ে তুলতে পারে।

ব্রাহ্মী

চুল ওঠা প্রতিরোধ করতে ও মাথায় রক্ত সঞ্চালন বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে ব্রাহ্মী। ব্রাহ্মীর দীর্ঘমেয়াদি ব্যবহার স্ক্যাল্প টিস্যুকে মজবুত করে তোলে যা চুলের সামগ্রিক স্বাস্থ্য উন্নত রাখতে সাহায্য করে।

দ্রাক্ষা

মাথায় তেলের উৎপাদনে ভারসাম্য বজায় রাখে দ্রাক্ষা এবং চুলে বাড়তি জেল্লা এনে দেয়।

ভার্জিন কোকোনাট অয়েল

সাধারণ নারকেল তেল আর ভার্জিন কোকোনাট অয়েলের মধ্যে একটা বড়ো পার্থক্য রয়েছে। ভার্জিন কোকোনাট অয়েল কোল্ড প্রেস পদ্ধতির সাহায্যে বের করা হয় যা তেলের সবটুকু গুণ বজায় রাখতে সাহায্য করে। কিন্তু সাধারণ নারকেল তেল চড়া উত্তাপের সংস্পর্শে আসে যা তেলের বহু পুষ্টিগুণ নষ্ট করে দেয় এবং তেলের কার্যকারিতাও কমিয়ে দেয়।

খাবার ও হজমের জন্য

এছাড়াও আয়ুর্বেদিক ডাক্তার দীক্ষা খাবার সময় নয়টি নিয়ম মেনে চলার পরামর্শ দিয়েছেন। আর এটা তিনি তাঁর নিজের ইনস্টা হ্যান্ডেলেই পোস্ট করেন।

১. যখন খিদে পাবে একমাত্র তখনই খাবেন।

২. খুব শান্ত পরিবেশে বসে, ধীরে সুস্থে খাবার খাওয়া দরকার।

৩. ঠিক পরিমাণে খাবার খান

৪. গরম খাবার খান

৫. ভাল খাবার খান

৬. একসঙ্গে প্রচুর খাবার একেবারে খাবেন না

৭. খাবার পরিবেশন করে বসে থাকবেন না, খেয়ে নিতে হবে

৮. খুব তাড়াহুড়ো করে খাবেন না

৯. রুটিন মাফিক প্রতিদিন খাওয়া দাওয়া করা দরকার