Nutrition• Gastric Cancer: কাজের চাপে নাওয়া খাওয়ার সময় নেই? পেট ভরাচ্ছেন ফাস্ট ফুডেই? তাহলে কিন্তু সাবধান!

গুড হেলথ ডেস্ক

সকালে কোনও রকমে নাকে মুখে কিছু গুঁজেই দৌড় অফিসের দিকে। অফিসে ফুরসত নেই ভাত–‌‌রুটি থালা সাজিয়ে খাওয়ার। তার চেয়ে জলদি মুখরোচক যা কিছু, দুপুরের খিদের সময়ে তা সটান পেটে (Nutrition• Gastric Cancer)। হতে পারে মোগলাই, মোমো, বার্গার অথবা ম্যাগি। পরক্ষণেই একটা কোল্ড ড্রিঙ্কে তৃপ্তির ঢেঁকুর। স

ন্ধ্যেবেলা অফিস থেকে বেরিয়েও খানিক ফুচকা, পাপড়ি চাট বা পিজায় উদরাপূর্তি। রাত্রে চোঁয়া ঢেঁকুর। ডিনারের ইচ্ছেটুকুই মাটি। অগত্যা এক গ্লাস জল খেয়েই লম্বা রাত ভোর হয়ে যাচ্ছে। কিন্তু এমন অভ্যাসে আমাদের অলক্ষে প্রতিনিয়ত ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ছে না তো? হতেই পারে আপনার অন্দরে একটু একটু করে বড় হচ্ছে পাকস্থলীর ক্যানসার (Nutrition• Gastric Cancer)। আপনি জানেন?

Nutrition

পাকস্থলীর ক্যানসার হল নীরব ঘাতক। চুপিসারে বাসা বাঁধে, তারপর একদিন এর ভয়ঙ্কর রূপ প্রকাশ পায়। দীর্ঘদিন এমন খাওয়াদাওয়ার বাজে অভ্যাসের ফলে ধীরে ধীরে শরীরের মধ্যে বাড়তে শুরু করে। একটু একটু করে ডালপালা মেলে। যদিও ৪০ পেরোলেই এই রোগের ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি। তবে বাড়াবাড়ি রকমের অনিয়ম করলে এই রোগ বয়সের গণ্ডি মানে না।

Kidney Stones: প্রায়ই তলপেটে ব্যথা? কিডনিতে পাথর জমছে না তো?

আপনারও কোনও উপসর্গ নেই (Nutrition• Gastric Cancer) তো?
এমনিতে শরীর মহাশয় ভালই, মন্দ-ভাল সবের সাথেই মানিয়ে নেওয়ার আশ্চর্য প্রয়াস তার আছে। তবে যে কোনও দিন বেঁকেও বসতে পারে।

Stomach Cancer

Gastric (Stomach) Cancer

যেমন ধরুন, আপনার আগে কোনওরকম হজমের সমস্যা ছিল না, কিন্তু হঠাৎই নতুন করে হজমের গন্ডগোল শুরু হল, তাহলে কিন্তু বেশ খানিকটা ঝুঁকি থেকেই যায়। তারপর যদি আপনাকে কথায় কথায় হজমের ওষুধ খেয়ে পরিস্থিতি সামাল দিতে হয়, তাহলে চিন্তার কারণ রয়েছে বৈকি। হঠাৎ করে খিদে কমে গেলেও সতর্ক হোন। রক্তাল্পতা বা অ্যানিমিয়াও হতে পারে পাকস্থলীর ক্যানসারের লক্ষণ, যদি দেখা যায় এত ভাজাভুজি খেয়েও আপনার ওজন কমছে, তাহলে অবশ্যই সাবধান হোন।

Cancer and Diet

দ্রুত পরীক্ষা করান

এন্ডোস্কোপি ও গ্যাস্ট্রোস্কোপি করে পাকস্থলীর অবস্থা বোঝা যায় সহজেই। তাই বিন্দুমাত্র সংশয় থাকলেই চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে পরীক্ষাগুলো করান (Nutrition• Gastric Cancer)। সঙ্গে রক্তপরীক্ষা ও সি টি স্ক্যান‌ও আবশ্যিক।

একটা জিনিস সবসময় জেনে রাখবেন, প্রাথমিক স্তরে এই ক্যানসার ধরা পড়লে অপারেশনই আরোগ্যের অব্যর্থ উপায়। তবে ক্যানসার বাড়াবাড়ির পর্যায়ে চলে গেলে অপারেশনের সঙ্গে সঙ্গে কেমোথেরাপি, রেডিওথেরাপি প্রয়োগ করার প্রয়োজন হতে পারে। তাই কোনও ভাবেই অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাসে নিজের জীবনকে এত বড় ঝুঁকির দিকে ঠেলবেন না। মনে রাখবেন, স্বাস্থ্যই সম্পদ। তা নিয়ে খেলা করা কিন্তু মুর্খামির সমান।