Heart Failure: হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমায়, হু-র জীবনদায়ী ওষুধের তালিকায় অ্যাস্ট্রজেনেকার ডেপাগ্লিফ্লোজিন

অ্যাস্ট্রজেনেকা ও ব্রিস্টলের তৈরি ওষুধ হার্টের (Heart Failure) যে কোনও জটিল অসুখের ঝুঁকি কমাতে পারে বলেই দাবি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার। হু-র জরুরি ও জীবনদায়ী ওষুধের তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে ডেপাগ্লিফ্লোজিন। ফারসিগা বা ফরসিগা ব্র্যান্ড নামে এই ওষুধ বিক্রি হয় বাজারে।

ডেপাগ্লিফ্লোজিন হার্টের অসুখের ঝুঁকি ৪০ শতাংশ কমাতে পারে, এমনটাই দাবি করা হয়েছে ‘অ্যানালস অব ইন্টারন্যাশনাল মেডিসিন’ মেডিক্যাল জার্নালে। ব্রিটেনের গ্লাসগো ইউনিভার্সিটির গবেষক জাওয়াদ এইচ বাট বলছেন, ওই ওষুধের কার্যক্ষমতা বা এফিকেসি পরীক্ষা করে দেখা গেছে, হৃদযন্ত্র ও হৃদপেশির স্বাস্থ্য ভাল রাখে এই ওষুধ। হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমায়। হার্টের অসুখে মৃত্যুর ঝুঁকিও কমায় ডেপাগ্লিফ্লোজিন।

টাইপ ২ ডায়াবেটিসের চিকিৎসায় এই ওষুধ কাজে লাগে। তাছাড়া হার্টের অসুখ ও কিডনির অসুখেও এই ওষুধের থেরাপি করেন ডাক্তাররা। সঠিক ডোজে ওই ওষুধ দিতে হয়। না হলে এর কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও আছে, যেমন হাইপোগ্লাইসেমিয়া, ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশন, জেনিটাল ইনফেকশন ইত্যাদি।

আজকের এই গতিময় জীবনে কর্মক্ষেত্রের টেনশন, বাতানুকূল পরিবেশে বসে কাজ করার অভ্যাস, কম পরিশ্রম, অতিরিক্ত ফাস্টফুড খাওয়া এবং ধূমপান, পুরুষ ও মহিলা নির্বিশেষে সকলকেই ঠেলে দিচ্ছে বিপদের মুখে। তা ছাড়াও রয়েছে ওবেসিটি ও ডায়াবেটিস। ডায়াবেটিস ধরে গেলে হার্টের রোগের ঝুঁকি চড়চড় করে বেড়ে যাচ্ছে। ডায়াবেটিস থেকে শুধু হার্ট নয় শরীরের অন্যান্য অঙ্গ-প্রত্যঙ্গও ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে না থাকলে ও নিয়ম মেনে না চললে পরবর্তীকালে কিডনি, নার্ভের সমস্যাও দেখা দিতে পারে। সেক্ষেত্রে এই ওষুধ কার্যকরী বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।