ডায়াবেটিসে বেশি রুটি খাওয়া বারণ? বদলে ফেলুন আটা, নিয়ন্ত্রণে থাকবে শর্করা

গুড হেলথ ডেস্ক

ডায়াবেটিস (Diabetes) বা মধুমেহর রোগী এখন ঘরে ঘরে। রক্তে শর্করার পরিমাণ স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি থাকলে, তাকে হাই ব্লাড সুগার বা ডায়াবেটিস রূপে চিহ্নিত করা হয়। এটা এমন একটা অসুখ, যা ঠিকমতো নিয়ন্ত্রণ করতে না পারলে স্বাভাবিক জীবনযাপনের ছন্দ বিঘ্নিত হয়। ডায়াবেটিস যে শুধু নিজে একটা অসুখ, তা নয়। এই রোগ আরও অন্যান্য জটিল রোগকে আহ্বান করে নিয়ে আসে। ডায়াবেটিসকে নিয়ন্ত্রণ করতে সবচেয়ে বড় অস্ত্র হল শৃঙ্খলাবদ্ধ জীবনযাপন আর ডায়েট।

Diabetes

সুগারের (Diabetes)  রোগী হলে কী খাওয়া যায় আর কী যায় না, সেই নিয়ে প্রচুর দ্বিধাদ্বন্দ্ব থাকে। বিশেষজ্ঞরা বলেন, সঠিক ডায়েট করলে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকে। ডায়াবেটিস মানেই যে কার্বোহাইড্রেট পুরোপুরি বাদ দিতে হবে, তেমনটা নয়। বিশেষজ্ঞরাই বলছেন, ডায়াবেটিসের রোগীরা যেমন পরিমাপ মতো ভাত খেতে পারেন, তেমনই রুটিও উপকারি। রুটিতে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকে, হজম প্রক্রিয়ার জন্য রুটি খুবই ভাল। এর অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়, শক্তির জোগান দেয়, রক্তে হিমোগ্লাবিনের ভারসাম্য বজায় রাখে। তবে হ্যাঁ, কী ধরনের আটার রুটি খাচ্ছেন সেটাও গুরুত্বপূর্ণ। ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য ময়দার রুটি একেবারেই চলবে না। তাহলে কী কী আটার রুটি খেলে উপকার হবে, সেটা জেনে নেওয়া জরুরি।

Diabetes Roti

এই চার ধরনের আটার রুটি ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখবে

চার ধরনের আটার রুটি খেতে বলছেন বিশেষজ্ঞরা–রাজগিরা বা আমরান্থ আটা, রাগির আটা, যব ও ছোলার আটা।

রাজগিরা বা আমরান্থ বীজ থেকে তৈরি আটায় প্রচুর প্রোটিন, ফসফরাস ও ক্যালসিয়াম থাকে। আমরান্থ বীজ থেকে তৈরি হাফ কাপ আটায় ১৪.৭ গ্রাম প্রোটিন থাকে। এই আটার রুটি খেলে অনেকক্ষণ পেট ভর্তি থাকে, জাঙ্ক ফুড খাওয়ার ইচ্ছা চলে যায়। তাছাড়া এর মধ্যে থাকা ক্যালসিয়াম হাড়ের স্বাস্থ্যের জন্য ভাল। রাজগিরা আটা রক্তে সুগার ও কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে। গ্লুটেন ফ্রি, হজমশক্তি বাড়ায়, চুল ভাল রাখে, বাতের ব্যথা বা যে কোনও ধরনের শারীরিক প্রদাহ কমাতে সাহায্য করে।

রাগির রুটি একটু লালচে দেখতে হয়, কারণ এতে আয়রন বেশি মাত্রায় থাকে। তাই অ্যানিমিয়া রোগীরা রাগি থেকে তৈরি রুটি খেতে পারেন। রাগিতে ক্যালরির পরিমাণ তুলনামূলক ভাবে অন্যান্য আটার চেয়ে কম বরং রাগিতে প্রোটিন পাওয়া যায়। ডায়াবেটিস (Diabetes)  রোগীদের জন্য রাগির আটার রুটি খুবই উপকারি। রক্তে শর্করাও নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

 Amarnath/Rajgira atta

যবের আটা সহজে হজম হয়। এই আটার রক্তে শর্করা নিয়ন্ত্রণে রাখে। এনার্জির জোগান দেয়। 

ছোলার আটায় দ্রবণীয় ফাইবার থাকে যা রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে। এর অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।