বৃষ্টিতে ভিজে গলায় ব্যথা? ঘরোয়া উপায়েই আরাম পাবেন

গুড হেলথ ডেস্ক

নাগাড়ে বৃষ্টি হচ্ছে। তার মধ্যেই স্কুল-কলেজ, অফিস যেতে হচ্ছে। বর্ষায় বৃষ্টি ভিজে ঠান্ডা লাগা খুবই স্বাভাবিক বিষয়। অনেক সময় ভিজে শরীরে অফিসে দীর্ঘ ক্ষণ এসি-র মধ্যে থাকলে ঠান্ডা লেগে গলা ব্যথা হয় (Sore Throat)। টনসিলের সমস্যাও বাড়ে। ঢোক গিলতে গেলেও খুব কষ্ট হয়।

বর্ষায় সর্দি-কাশি, গলা ব্যথার জন্য দায়ী জীবাণুরাই (Sore Throat)। টনসিলে সংক্রমণ হলেও তা সারতে সময় লাগে। তবে গলা ব্যথা, গা ম্যাজম্যাজে ভাব থাকলে গাদা গাদা অ্য়ান্টিবায়োটিক খেলে নানা সাইড এফেক্টস হতে পারে। তার থেকে বরং ঘরোয়া উপায়ে শরীরের যত্ন নিলে ফল হয় অনেক বেশি।

Tonsillitis Home Remedies

ঘরোয়া উপায়ে গলা ব্যথা কমবে কী করে?

ভেপার নিন

গরম জলে সামান্য নুন ফেলুন। এ বার কান-মাথায় ভাল করে জড়িয়ে নিন মোটা কোনও কাপড়। তার পর পাখার তলা থেকে সরে গরম জলের ভাপ নিন (Sore Throat)। দিনে বার দু’য়েক এমনটা করতে পারলে ভাল। এতে খুব সহজেই কমে গলার ব্যথা।

মধু চা

গলা ব্যথা বা টনসিলের সমস্যা হলে গ্রিন টি-র মধ্যে দু’ চামচ মধু মিশিয়ে ফোটান। মধুর অ্যান্টি ব্যাকটিরিয়াল উপাদানের সঙ্গে গ্রিন টি-র অ্যান্টি অক্সিডেন্ট উপাদান মিশে টনসিলকে আরাম দেয়।

tonsil pain

গার্গল

নুন জলে গার্গল করার টোটকা তো প্রায় সকলেরই জানা (Sore Throat)। টনসিলাইটিসের সমস্যায় বেশ কাজে দেয় এটি। তবে ঠিক কত পরিমাণ জল আর কতখানি নুন নেবেন, এটা জানা থাকে না। ১ কাপ গরম জল নিয়ে তাতে / চা চামচ নুন মেশান। দিনে বারকয়েক গার্গল করুন। ব্যস, তা হলেই আরাম মিলবে।

লেবুর রস

লেবু শরীরের টক্সিন দূর করতে খুব উপকারি। তাই টনসিলে সংক্রমণ হলে বা গলায় ব্যথা হলে ঈষদুষ্ণ জলে এক চামচ লেবুর রস, এক চামচ মধু ও সামান্য নুন ভাল করে মিশিয়ে খান।

হলদি দুধ

গলার ব্যথা কমাতে অনেকেই ঘরোয়া উপায়ে এর ব্যবহার করেন। সে ক্ষেত্রে এক কাপ দুধে সামান্য হলুদ মেশান। তার পর সেই দুধ ফুটিয়ে গরম গরম খান। এই হলুদ মেশানো দুধ গলার ব্যথা কমাতে খুব উপকারি।

এই সময় বাড়িতেই বিশ্রাম নেওয়া জরুরি। তাতেই শরীরের ধকল অনেক কমে যায়।