আবহাওয়া বদলাচ্ছে, চোখ রাঙাচ্ছে নানা ভাইরাস, এই সময় শরীর ঠিক রাখতে কী কী করবেন

গুড হেলথ ডেস্ক

ঋতু বদলাচ্ছে। খামখেয়ালি আবহাওয়ায় নানা অসুখবিসুখ বাড়ছে। চোখ রাঙাচ্ছে একাধিক সংক্রামক ভাইরাস। মশাবাহিত রোগের প্রকোপ বেড়েছে। জ্বর, সর্দি-কাশি জাঁকিয়ে বসেছে। অসুস্থ হচ্ছে বাচ্চারাও। বাড়ির বয়স্কদের নিয়েও চিন্তা বাড়ছে। এই সময়টাতে সামগ্রিকভাবে সুস্থ (Healthy Lifestyle) থাকতে কিছু নিয়ম মেনে চলতে বলছেন ডাক্তারবাবুরা। 

রোজকার জীবনে কী কী নিয়ম মানবেন?

১) শীত আসছে, এই সময় ঈষদুষ্ণ জলে স্নান করা ভাল। স্নানের পরে শুকনো করে গা-মাথা মুছে নেবেন। অনেকেই সারাদিন পরে রাতে ফিরে স্নান করেন। যদি ঠান্ডা লাগার ধাত থাকে, তাহলে স্নান না করাই ভাল। খুব অস্বস্তি হলে গরম জলে টাওয়েল ভিজিয়ে গা স্পঞ্জ করে নিন। এই ছোট ছোট বিষয়গুলো মাথায় রাখলে (Healthy Lifestyle) চট করে ঠান্ডা লাগবে না।

২) সারাদিনে পর্যাপ্ত জল খেতে হবে। তিন-চার লিটার জল খেতেই হবে। শীতে এমনিতেও জল খাওয়ার পরিমাণ কমে যায়। গাফিলতি করলে নানা সমস্যা দেখা দেবে।

Healthy Lifestyle

৩) বাইরে বেরোলে চেষ্টা করুন মাস্ক পরতে। করোনা কমে গেছে ঠিকই, কিন্তু নানা সংক্রামক ভাইরাসের প্রকোপ বেড়েছে। কাজেই নিজের সুরক্ষার দিকে খেয়াল রাখতেই হবে। বাইরে থেকে এলে ভাল করে হাত-পা ধুতে হবে। স্যানিটাইজার সঙ্গে রাখুন। পরিচ্ছন্ন হয়ে তবে বাচ্চার কাছে যাবেন (Healthy Lifestyle) ।

৪) মরশুমি ফল, শাক-সবজি খাওয়ার উপর জোর দিন। সিট্রাস জাতীয় ফল বেশি করে খান। পেয়ারা, লেবু জাতীয় ফল রোজের খাদ্যতালিকায় রাখুন। ভিটামিন সি শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াবে।

৫) টাটকা ফল, সমুদ্রের মাছ, বাদাম, বিনস, অলিভ অয়েল-সহ কিছু খাবার এইচডিএল বাড়াতে সাহায্য করে। তাই রোজকার ডায়েটে এই সব খাবার রাখার চেষ্টা করুন।

healthy lifestyle

৬) স্ট্রিট ফুড খাওয়া একদম বন্ধ করে দিন। নানা অসুখবিসুখের কারণ এইসব খাবার। নিয়মিত তেলমশলাদার খাবার বা রাস্তার খাবার খেতে শুরু করলে, ব্যাকটেরিয়াল ইনফেকশন হতে বাধ্য। রাস্তার শরবত, কোল্ড ড্রিঙ্কস না খেয়ে বাড়িতে তৈরি লেবুর জল, ফলের রস, লস্যি বানিয়ে খান।

৭) লাল চা খান বা গ্রিন টি, সব ধরনের চায়েই কেটচিন নামের একটি অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট থাকে তা ঠান্ডা লাগার হাত থেকে আপনাকে বাঁচাতে সক্ষম। তবে চিনি, দুধ দিয়ে কড়া করে ফোটানো চায়ে আপনি সেই সুবিধে পাবেন না। ক্যামোমাইল বা জেসমিনের মতো ফ্লেভার দেওয়া চা-ও ভাল।

works out together

৮) আদা, কাঁচা হলুদ আর গোলমরিচ বেশ করে ফুটিয়ে ছেঁকে নিয়ে গরম থাকতে থাকতে চায়ের মতো খান দিনে দু’বার।  এর মধ্যে অর্ধেকটা লেবুর রস মিশিয়ে দিতে পারলে আরও ভাল হয়।

৯) যাঁদের প্রেশার বা রক্তে চিনির মাত্রা ঊর্ধ্বমুখী, তাঁদের অবশ্যই নিয়মিত ওষুধ খাওয়ার পাশাপাশি ওজন ঠিক রাখা জরুরি। সুদীর্ঘ লকডাউনের ফলে গৃহবন্দি থাকায় অনেকেরই ওজন বেড়ে গিয়েছে। নিজেকে সুস্থ রাখতে নিয়মিত ব্যায়াম করতেই হবে। বাড়তি ওজন ক্যানসার, হার্ট অ্যাটাক, ব্রেন স্ট্রোক, ডায়াবিটিস-সহ নানান রোগ ডেকে আনে।

১০) কোনও অবস্থাতেই নিজের ডাক্তারি নিজেরা করবেন না, ওভার দ্য কাউন্টার ওষুধ কিনে খেলে আচমকা বিপদে পড়তে পারেন। চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে তবেই ওষুধ খাবেন। লাইফস্টাইল ডিজিজ (Healthy Lifestyle) প্রতিরোধ করা যায় সচেতন থাকলেই। ভাল থাকার, সুস্থ থাকার ভাবনা নিজের।