কয়েক মিনিটের জন্য চোখে অন্ধকার, অসাড় হাত-পা, মিনি স্ট্রোক কিনা বুঝবেন কী করে

গুড হেলথ ডেস্ক

আচমকাই দুলে উঠল মাথা, চোখের সামনে অন্ধকার (Transient ischemic attack)। হাত-পা যেন অবশ হয়ে গেছে। কথা বলতেই পারছেন না ঠিক করে। এমন অবস্থার মুখোমুখি হয়েছেন কখনও? 

ডাক্তারবাবুরা বলেন, আচমকাই এমন ঘটনা ঘটতে পারে যে কারও সঙ্গেই। একে সাধারণ ভাষায় বলে মিনি স্ট্রোক। ডাক্তারি পরিভাষায় যাকে বলে, ট্রানসিয়েন্ট ইসকেমিক অ্যাটাক ( Transient ischemic attack )। যে কোনও বয়সেই মিনি স্ট্রোক হতে পারে। বাড়তে থাকা স্ট্রেস, উদ্বেগ, অতিরিক্ত পরিশ্রম, অনিয়মিত জীবনযাত্রা, অস্বাস্থ্যকর খাওয়ার অভ্যাস–সবকিছুই এর কারণ হতে পারে। মিনি স্ট্রোক ধরতে পারেন না অনেকেই। গ্যাস বা অ্যাসিডিটির সমস্যা ভেবে এড়িয়ে যান। ফলে এই ছোট ছোট লক্ষণগুলোই বড় আকার নিয়ে পরবর্তী সময়ে ব্রেন স্ট্রোকের কারণ হতে পারে।

Transient Ischemic Attack 

ট্রান্সিয়েন্ট ইসকেমিক অ্যাটাক বা টিআইএ-এর লক্ষণ অল্পসময়ের জন্য দেখা দেয়। কিন্তু এর প্রভাব সুদূরপ্রসারী। এমন উপসর্গ দেখা দিলে দেরি না করে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।

কী কী লক্ষণ দেখে বুঝবেন মিনি স্ট্রোক হয়েছে?

কিছু সময়ের জন্য যদি মস্তিষ্কে রক্ত পৌঁছনো বন্ধ হয়ে যায়, তাহলে মিনি স্ট্রোক হতে পারে।

লক্ষণগুলো চিনে নিন

  • হঠাৎ চোখে অন্ধকার
  • মাথা ঘুরবে, বডি ব্যালান্স হারিয়ে যেতে পারে
  • হাত-পা অসাড় মনে হবে
  • শরীরের একদিকের হাত-পা  অবশ হয়ে যেতে পারে
  • কথা জড়িয়ে যাবে
  • মুখের একদিক বেঁকে যেতে পারে
  • হঠাৎ করে প্রচণ্ড মাথা যন্ত্রণা করবে
  • চোখের দৃষ্টি ঝাপসা হবে
  • ডবল ভিশন হতে পারে
  • হঠাৎ করে হাঁটতে অসুবিধে হবে
  • চিন্তাভাবনা গুলিয়ে যাবে
  •  TIA or Mini Stroke

উচ্চ রক্তচাপ থাকলে, ডায়াবেটিস বা কোলেস্টেরলের সমস্যা থাকলে, ওজন বেশি হলে, বংশে কারও স্ট্রোকের ইতিহাস থাকলে টিআইএ হতে পারে। মিনি স্ট্রোক বা টিআইএ হলেও সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে যাওয়া জরুরি। তাড়াতাড়ি চিকিৎসা শুরু করলে ভবিষ্যতে বড় রকম দুর্ঘটনা এড়ানো যেতে পারে।