হাঁটুর ব্যথায় কষ্ট পাচ্ছেন? কলকাতার সেরা ১০টি অর্থোপেডিক হাসপাতালের নাম, ঠিকানা জেনে নিন

গুড হেলথ ডেস্ক

হাঁটুর ব্যথা (knee Pain) এখন প্রতিটি ঘরের সমস্যা। ব্লাড প্রেশার, ডায়াবেটিসের মতোই এই রোগও জাঁকিয়ে বসেছে বাঙালি পরিবারে। মধ্য চল্লিশেও অনেকে আক্রান্ত হচ্ছেন হাঁটুর ব্যথায়। হাঁটুর ব্যথা আসলে বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই অস্টিওআর্থ্রাইটিস (Orthpedic)। বয়স বাড়লে হাঁটুর হিঞ্জ জয়েণ্টের কার্টিলেজের ক্ষয় হয় আর তলার হাড়ও ক্ষয়ে যায়। এতে অনেকের হাঁটু ফুলেও যায়।

তাছাড়া এখন সারাক্ষণই বসে কাজ। হয় অফিসে ডেস্কে বা বাড়িতে খাটে বসে কম্পিউটরে মুখ গুঁজে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কাটছে। সেই জন্যই বাড়ছে পিঠ, কোমর, হাঁটুতে ব্যথা (knee Pain)।  হাঁটু ব্যথা করছে বলেই তো রোজ ব্যথার ওষুধ খেতে পারবেন না। তাতে আরও নানা রকম শারীরিক সমস্যা বাড়বে। 

তাছাড়া যাঁরা কোনও শারীরিক সমস্যার জন্য নিয়মিত স্টেরয়েড নিতেন, কেমোথেরাপি হয়েছে, মৃগীর মতো রোগের চিকিৎসা চলছে, তাঁদেরও কিন্তু অস্টিওপোরোসিসে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা খুব বেশি। মেনোপজ়ের আশপাশের পাঁচ-সাত বছরে মেয়েরা তাদের বোন ডেনসিটির ২০% পর্যন্ত হারাতে পারে। যদি দেখেন যে আপনার ওজন ক্রমশ কমছে এবং কোনও কারণ ছাড়াই ঋতুচক্র অনিয়িমত হয়ে পড়েছে, তা হলে অতি অবশ্যই একবার ডাক্তার দেখিয়ে নেওয়া জরুরি।

কলকাতায় কোন কোন ডাক্তার ফিসচুলার চিকিৎসা করেন? যোগাযোগ করবেন কীভাবে

হাঁটর ব্যথা, পিঠ-কোমরের ব্যথা ক্রনিক হয়ে গেলে মুশকিল। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই আমরা সমস্য়া এড়িয়ে যাই। অথবা বুঝতে পারি না ঠিক কোন জায়গায় গেলে সঠিক চিকিৎসা হবে। কোন হাসপাতালে যাবেন, কোন ডাক্তার দেখাবেন এইসব দ্বিধাদ্বন্দ্বেই সময় কেটে যায়। কলকাতায় এমন অনেক হাসপাতাল রয়েছে যেখানে অর্থোপেডিক সমস্যার চিকিৎসা, থেরাপি করানো হয়। খুব ভাল ভাল ডাক্তারবাবুরাও রয়েছেন। চলুন জেনে নেওয়া যাক, কলকাতার সেরা ১০টি অর্থোপেডিক হাসপাতালের নাম।

হাঁটুর ব্যথা ভোগালে, গাঁটে গাঁটে ব্যথা-বাতে দুর্ভোগ বাড়লে কোথায় যাবেন–

১) এএমআরআই হাসপাতাল–কলকাতায় ঢাকুরিয়া, সল্টলেক, মুকুন্দপুর ও সাউদার্ন অ্যাভিনিউতে আছে। সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল, খুব ভাল চিকিৎসা হয়।

২) ফোর্টিস হাসপাতাল— কলকাতার আনন্দপুরে, মাল্টি স্পেশালিটি হাসপাতাল। কার্ডিওলজি এবং কার্ডিয়াক সার্জারি, ইউরোলজি, নেফ্রোলজি, অর্থোপেডিক সহ বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা হয়। পরিকাঠামোও উন্নত।

৩) অ্যাপোলো মাল্টিস্পেশালিটি হাসপাতাল-– জয়েন্ট ও হিপ রিপ্লেসমেন্ট, হিপ রিসার্ফেসিং এবং শোল্ডার রিপ্লেসমেশন সার্জারি, হাঁটু, হিপ এবং কাঁধের রিভিশন সার্জারি, গোড়ালি, হাঁটু, কাঁধ এবং নিতম্বের আর্থ্রোস্কোপি সহ নানা চিকিৎসা ও থেরাপি করা হয়।

৪) কলকাতা মেডিক্যাল রিসার্চ ইনস্টিটিউট— কলকাতার আলিপুরের এই হাসপাতাল  সি কে বিড়লা গ্রুপ অফ হসপিটালের অধীনে। মাল্টি স্পেশালিটি হাসপাতাল, খুব ভাল ডাক্তারবাবুরা আছেন।

৫) আমরি হাসপাতাল-– ঢাকুরিয়া, মুকুন্পুর, সল্টলেকের আমরি হাসপাতালে অর্থোপেডিক সার্জনরা রয়েছেন। পরিকাঠামোও উন্নত।

৬) মার্সি হাসপাতাল-– কলকাতার মল্লিক বাজার, পার্ক স্ট্রিট এলাকায় রয়েছে এই হাসপাতাল। ১৯৭৭ সালে তৈরি এই হাসপাতালে বড় বড় অর্থোপেডিক সার্জনরা রয়েছেন।

৭) শ্রী অরবিন্দ সেবা কেন্দ্র–যোধপুর পার্কে রয়েছে এই হাসপাতাল। ল্যান্ডমার্ক–যাদবপুর থানার কাছে। অর্থোপেডিক যে কোনও সমস্যার জন্য আলাদা বিভাগ রয়েছে, বড় বড় অর্থোপেডিক সার্জনদের প্যানেলও রয়েছে।

৮) উডল্যান্ডস মাল্টিস্পেশালিটি হাসপাতাল— আলিপুর রোডে উডল্যান্ডস কে না চেনে। জানেন কি, অর্ছোপেডিক চিকিৎসার আলাদা ইউনিট আছে এখানে? অর্থো ও ট্রমা কেয়ার সেন্টারও আছে।

৯) বিপি পোদ্দার হাসপাতাল ও মেডিক্যাল রিসার্চ–নিউ আলিপুরের এই হাসপাতালে  হাঁটু, হিপ, শোল্ডার ও জয়েন্ট রিপ্লেসমেন্টের খুব ভাল ব্যবস্থা আছে এখানে। পলিট্রমা সার্জারিও হয়।

১০) রুবি হাসপাতাল— অর্থোপেডিক যে কোনও সার্জারির উন্নত পরিকাঠামো আছে। কসবা, রুবি মোড়ের এই হাসপাতালে খুব ভাল অর্থোপেডিক সার্জনরাও রয়েছে।